ঢাকা, ১২ই জুলাই, ২০২০ ইং, রবিবার
মেনু |||

অন্ধকার সুড়ঙ্গের মধ্যে হামাগুড়ি দিচ্ছি, মুখ খুললেন অক্ষয়ের স্ত্রী

ভারতে মুসলিমবিদ্বেষী সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন পাস হওয়ার প্রতিবাদে দিল্লির জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ওপর পুলিশি হামলার প্রতিবাদ জানিয়েছেন বলিউডের নায়ক-নায়িকা ও কলাকুশলীরা।

 

অনুরাগ কশ্যপ, রাজকুমার রাও, ভিকি কৌশল, পরিণীতি চোপড়া, আয়ুষ্মান খুরানা, মহেশ ভাট, আলিয়া ভাটরা এনিয়ে শুরুতেই মুখ খুলেছেন। এবার এই ইস্যুতে সরব হলেন সাবেক অভিনেত্রী ও লেখিকা টুইঙ্কেল খান্না।

 

নয়া নাগরিকত্ব আইন এবং জাতীয় নাগরিকপঞ্জির (এনআরসি) নিয়ে টুইটার পোস্টে তিনি লিখেন, যেভাবে হিংসাত্মকভাবে আমাদের ছাত্রছাত্রীদের মুখ বন্ধ করে দেয়ার চেষ্টা চলছে সেটা খানিকটা অন্ধকার সুড়ঙ্গের মধ্যে হামাগুড়ি দিয়ে চলার মতো। আমি ধর্মনিরপেক্ষ গণতান্ত্রিক ভারতের পক্ষে, যেখানে শান্তিপূর্ণভাবে থাকাই আমাদের সাংবিধানিক অধিকারের মধ্যে পড়ে।

 

ধর্ম, বর্ণ, জাতীয় সামাজিক কাঠামোর উপর ভিত্তি করে বৈষম্য তৈরি করা নৈতিক এবং মৌলিক অধিকারের পরিপন্থী বলেও মন্তব্য করেন অক্ষয় কুমার পত্নী।

 

এর আগে ভুল করে দিল্লির জামিয়া ছাত্রদের ব্যঙ্গাত্মক একটি পোস্টে লাইক দিয়ে বিতর্কে জড়ান বলিউডের জনপ্রিয় নায়ক অক্ষয় কুমার। তবে টুইটার করে এই পোস্টে ভুল করে লাইক দেয়ার জন্য ক্ষমা চেয়েছেন তিনি।

 

ভুল করে ছাত্রদের ব্যঙ্গাত্মক পোস্টে লাইক দেয়ার কারণে টুইটারজুড়ে ট্রেন্ড উঠল ‘বয়কট অক্ষয় কুমার’। তার কানাডিয়ান নাগরিকত্ব নিয়ে খোঁচা দিয়েও লেখা হলো ‘#বয়কট কানাডিয়ান কুমার’।

 

এ ঘটনার ঠিক তিনদিন পরই সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন নিয়ে অক্ষের স্ত্রী টুইঙ্কেল দ্বিতীয় টুইটটি করেন।


ঢাকাওয়াচ/স

সম্পাদক : শাখাওয়াত সজীব
বাড়ি নং – ২৬৩, মালিবাগ, ঢাকা-১২১৭।
ফোন: ০১৭১১৭১০৪৬৬
ই-মেইল: dhakawatch24@gmail.com