ঢাকা, ২৭শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, শুক্রবার
মেনু |||

জনতা ব্যাংকে পদোন্নতিতে ব্যাপক অনিয়ম

স্টাফ রিপোটারঃ জনতা ব্যাংকের পদোন্নতিতে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। পদোন্নতিতে জ্যেষ্ঠতা ও যোগ্যতা মূল্যায়ন না করে পদোন্নতি দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে খোদ পরিচালরা পর্ষদের বিরুদ্ধে।

 

সম্প্রতি রাষ্ট্র মালিকানাধীন এ ব্যাংকটি মহাব্যবস্থাপক(জিএম) পদে ২০ জন, উপমহাব্যবস্থাপক(ডিজিএম) পদে ৭০ জন, সহকারী মহাব্যবস্থাপক(এজিএম) পদে ১৬০ জনকে পদোন্নতি দেয়। এ পদ গুলোতে পদোন্নতি নীতিমালার তোয়াক্কা না করেই পদোন্নতি দেয়া হয়েছে বলে জানান পদোন্নতি বঞ্চিতরা।

 

ব্যাংক সূত্রে জানা যায় এ বছরের ২ জানুয়ারি পদোন্নতি নীতিমালা জারি করা হয় যার নং ৯২৪/২০। নীতিমালাটির অধিকাংশ নিয়ম এ পদোন্নতিতে মানা হয়নি বলে জানান পদোন্নতি বঞ্চিতরা।

 

পদোন্নতি বঞ্চিত একাধিক কর্মকর্তা জানান, অধিকাংশ পদোন্নতির ক্ষেত্রে জ্যেষ্ঠতা, কাজের অভিজ্ঞতা ও শিক্ষাগত যোগ্যতার মূল্যায়নই করা হয়নি। বোর্ড সদস্যদের ব্যক্তিগত সম্পর্ক ও অর্থ বিনিময়কে এক্ষেত্রে বিবেচনা করা হয়েছে। তারা আরো জানান, শীর্ষ এ পদ গুলোতে অনেকাংশেই ব্যাংকের কর্মচারী থেকে পদোন্নতি পাওয়া কর্মকর্তাদের পদোন্নতি দেওয়ায় পদোন্নতি বঞ্চিত মেধাবী অফিসারদের মধ্যে চরম হতাশা তৈরি হয়েছে। এতে ব্যাংকটির অভ্যন্তরীণ শৃঙ্খলা ব্যবস্থা ভেঙে পড়ার আশংকা করছেন কেউ কেউ।

 

নাম প্রকাশ না করার শর্তে ব্যাংকের একজন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা জানান, শীর্ষ এ পদ গুলোর মতই পদোন্নতির জন্য অপেক্ষমান সিনিয়র প্রিন্সিপাল অফিসার, প্রিন্সিপাল অফিসার ও সিনিয়র অফিসার পদ গুলোতে একই ভাবে অনিয়মের মাধ্যমে পদোন্নতি দেয়ার পায়তারা চলছে।

 

পদোন্নতি নিয়ে ওঠা অভিযোগের বিষয়ে জনতা ব্যাংকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মো. আবদুস সালাম আজাদের সঙ্গে মোবাইল ফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।


ঢাকাওয়াচ/স

বাড়ি নং – ২৬৩, মালিবাগ, ঢাকা-১২১৭।
ই-মেইল: dhakawatch24@gmail.com